golpo sex পরিবর্তন দ্বিতীয় পর্ব – 5

bangla golpo sex choti. সাধারণত আমার একটু বেলা করেই ঘুম ভাঙে। কিন্তু আজ অনেকদিন পর ভোরের আলো দেখলাম।

জানলার গ্রিলের ফাঁক দিয়ে সমান্তরাল সোনালী রোদ পড়েছে আমাদের শিশুর মত নগ্নতায়। যেন সোনালী সূক্ষ্ম মসলিনের চাদর গায়ে শুয়ে আছি আমরা।

অনু আর আমি।

স্ত্রী আর স্বামী।

কালকের মত, একই ভঙ্গিতে।

কালকে রাতে….?

আমার মনে এক অদ্ভুত অনুভূতি। কী ধরণের? বলতে পারব না। আমি এখন ডেফিনিটলি আমি নিজে, দীপাঞ্জন গুপ্ত। অন্য লোকটা ধারেকাছে নেই। কিন্তু…. আশ্চর্য! আমি কালকের জন্য অনুতপ্ত নই কেন? আমি কাল যা করেছি, আইনত তার জন্য আমার যাবজ্জীবন হওয়া উচিৎ। অথচ, ভয় পাওয়ার বদলে, লজ্জা ঘৃণা গ্লানি অনুতাপে ডুবে যাওয়ার বদলে আমি…. আমি….

golpo sex

আমি…. খুশী….?!!

অথচ আমি জানি যে এরকমটা মনে হওয়া চূড়ান্ত অস্বাভাবিক!

যুযুধান দুই প্রতিবর্তী অনুভূতির টানে আর পড়ে থাকতে পারলাম না। উঠে পড়লাম। নাড়াচাড়ায় অনু একটু জেগে গিয়ে নড়েচড়ে উপুড় হয়ে শুলো।

কোমরের নীচ থেকে সাতটা সমান্তরাল কালো কালো দাগ। মধ্যে ফুলের মতো যোনি। এখনো দৃশ্যতই হাঁ হয়ে আছে। কতক্ষণ আমার পেনিস শক্ত হয়ে ছিল? এই একটু আগে অবধি না কী? ওই সাতটা ছাড়াও ছোট ছোট অনেক দাগ সারা গায়ে। পায়ের পাতাগুলো লাল হয়ে আছে।

অনু…. আমার অনু….

এই প্রথম অনুভব করলাম, ভালবাসি ওকে। না, প্রথম বার, বিয়ের পর, সেটা শুধুই মুগ্ধতা ছিল। এখন… এখন অন্য কিছু। স্নেহ। সহমর্ম। সহধর্ম।

ড্রেসিং টেবিলের ড্রয়ার থেকে বোরোলীনের টিউবটা বার করলাম। কালকের ডিলডোটা এখনো পড়ে আছে সেখানে। অসহ্য লাগল, খাটের তলায় ছুঁড়ে দিলাম।

যত্ন নিয়ে অনুর প্রতিমাসম দেহের প্রতিটি দাগে দাগে পুরু করে লাগাচ্ছি বোরোলীন। অনু আস্তে আস্তে জাগছে। একবার ঘাড় ঘুরিয়ে চেয়ে দেখল আমার দিকে। চোখের কোলে কালি, কিন্তু অবসন্ন, শুকনো ঠোঁটের আড়ে একটু অল্প হাসি। বড় মধুর, বড় আপন। golpo sex

আমার বুকের ভেতর ভায়োলিনের মোচড়। রোদ কখনো কাঁদতে পারে কে জানে সে কথা।

আমার চোখে অনুর চোখ। মানুষ এত কথা কেন বলে, যদি শুধু চোখের দৃষ্টিতে এক বুক থেকে অন্য বুকের ভেতর গিগাবাইট-ভর্তি আবেগ আপলোড করা যায়?

কিছু বলতে হল না। মুখটা নামিয়ে এনে চুমু খেলাম ওর ঘাড়ের ঠিক মাঝে। আরেক বার, একটু নীচে। আর একটা, আরেকটু নীচে। আরেকটু। আরেকটু। আরও। আরও। আরও…..

আর নীচে যাওয়া যায় না। এখানে নীচ নেই, শুধু গভীর। অনেকদিন আগে পড়েছিলাম, মানুষের শরীরের সবচেয়ে বলশালী পেশী হল জিভ। এ কুয়োর জল বড় মিষ্টি। টক টক শীৎকার গোলা রূহ-আফজা। ছি, সকাল সকাল নেশা করে কেউ?

অনু টান টান হয়ে শুলো, ভাঁজ হাঁটু সোজা করে ছড়িয়ে দিল পা। হাতও একই ভাবে টান টান। ক্রুশহীন নারীরূপীণি যীশু। কিছু বলতে হল না আমাকে, আমিও একইভাবে ঠিক ওর ওপর টান টান হয়ে শুলাম। ওর প্রতিটি অঙ্গ আমার একই অঙ্গে ঢাকা। golpo sex

পুরুষ ও নারী প্রত্যেকে অসম্পূর্ণ। এ কথা ধর্ম বা বিজ্ঞান, দর্শন বা রূঢ় বাস্তব, সবাই স্বীকার করে বাধ্য। অবুঝ তবু আমরা মিলনের পথে কাঁটা ফেলি কেন?

যখন মেলে দুই শরীর ও মন,
জীবন ধর্ম হয় রে পূরণ।

এ পুরুষের হাত ধরেছে এ নারীর হাত, মন ধরেছে মন। এ নারী ধারণ করেছে এ পুরুষের অঙ্গ, বরণ করছে নিজ অঙ্গে ধীরে ধীরে। ধীরে… ধীরে…. ধীরে….. আজ কোন তাড়া নেই আর।

থেমে গেছে পৃথিবী, থেমে গেছে সময়, থেমে গেছে রিলেটিভিটি। চলমান শুধু আমাদের দেহদ্বয়। শুধু আমি আর অনু। অনু আর আমি। অনুর ক্ষতের বোরোলীন মেখে যাচ্ছে আমার বুকের লোমে। আরো গভীরে ডুবে যাচ্ছি আমি…. ধীরে, ধীরে…..

কামপ্রেমঘন নিঃশ্বাস রচনা করেছে আবহসঙ্গীত। অনুর গালে গাল রেখে কোমর নাড়াচ্ছি আমি। ধীরে…. ধীরে….. আমার উষ্ণ লিঙ্গ যোনি দিয়ে কামড়ে কামড়ে টেনে নিচ্ছে অনু। ধীরে…. ধীরে…..

– “দীপ…. আঃ দীপ…. কেন ফিরে এলে?”

– “আমি যে ধূমকেতু, অনু। আহহহহহহ….. যত দেরী হোক, ফিরতে তো আমাকে হবেই….”

অনুর চোখের উষ্ণ জল আমার গালে মেখে যাচ্ছে। golpo sex

– “এতদিন শুধু শরীর দিয়েছি তোমায়। আঃ…. আজ? আহহহহহহহ….. আজ যে সব কিছু নিয়ে নিলে। আহহহহ…. আর কিছু রাখলে না আমার। আমার সবকিছু….. আঃ…. খুলে দেখে নিলে? আমার যে…. নিজের মনটাও…. আর গোপন রইলো না….. আহহ…. তোমার পায়ের তলায় আমার…. আঃ…..”

– “শশশশ…. এখন কথা বলে না।”

ওর শুকনো ঠোঁট চাটছি আমি। সাপের মত ঊর্ধাঙ্গ তুলে দরেছে অনু, যৌন ছন্দে মোহিতা নাগিনীর মত দুলছে। কাঁপে ওর গোপন পেশল নল…..

– “আঃ দীপ, দীপ, দীপ আমার!”

থরথর গলে যায় নারী, আমার পৌরুষে অভিষিক্তা, আমার স্ত্রী, আমার অর্ধাঙ্গিনী, আমার জীবনসঙ্গিনী….. “আমার অনু ! আমার !”

অনুর হাতে আর নিজেকে তুলে রাখার মত জোর নেই। কনুইগুলো কাঁপতে কাঁপতে ধীরে ধীরে বুক-মাথা ফের নেমে এল বিধ্বস্ত বিছানায়। আমি ভাল করে জড়িয়ে ধরে একশো আশি ডিগ্রি পাক খেলাম। এখন আমার ওপর চিত হয়ে পড়ে আছে আমার অনু। ঝিরঝির বৃষ্টিতে তিরতির কাঁপতে থাকা অনু।

হঠাৎ কেন জানি মনে হল আজ আমাদের ফুলশয্যা।

কয়েকটা গভীর শ্বাস নিয়ে আমার ওপরেই ঘুরে শুলো ও। আমার গলায় মুখ গুঁজে দিল। আমি ওর চুলের জট ছাড়াতে লাগলাম। golpo sex

– “আই অ্যাম…. সো সরি, দীপ।” আমার গলার মধ্যে ফিসফিস করছে অনু, “আমি তোমার প্রতি যা করেছি তার কোন ক্ষমা নেই…..”

– “শশশ। যা গেছে গেছে। আই নো হাউ ইউ ফিল। তোমার কিচ্ছু বলার দরকার নেই।”

– “আমাকে বলতেই হবে, না হলে শান্তি পাব না। আমার…. অনাচার প্রতিদিন আমাকে অ্যাসিডের মত জ্বালিয়েছে। আমার অন্যায়…. আমি…. আমি খুব খারাপ মেয়ে, দীপ। তুমি আমায় মেরে ফেলো, আর আবার বিয়ে করো। আমাকে ভালবেসো না, দীপ। আমি কত খারাপ তুমি জানো না!”

– “জানি।”

আমার হাতের মধ্যে অনুর শরীরটা অসাড় হয়ে গেল।

– “ক-কী জানো তুমি?”

গভীর ভাবে ওর চুলের গন্ধ নিলাম আমি। আঃ, এত সুন্দর ন্যাচারাল গন্ধ থাকতে যে মেয়েরা কেন গন্ধতেলের পিছনে খরচা করে?

– “ডোন্ট ওয়ারি। এদেশে ও জিনিস প্রচলই না হলেও বিদেশে খুবই চলে। এমনকি বিদেশে ওটা লিগ্যাল-ও। এখানে এখনো নয়, তবে আমেরিকার সর্দি হলে এখানে রুমালের ফ্যাশন পালটে যায়। এখানেও হয়ে যাবে। ততদিন কেউ না জানলেই হল।” golpo sex

অনুর সারা শরীর আবার কাঁপতে শুরু করেছে, কিন্তু আগের মত মধুর কম্পন নয় আর।

– “ওহ দীপ, দীপ! আয়াম সো… সো সরি!” শুকনো কান্নায় ফুঁপিয়ে উঠছে অনু। “প্লীজ এর জন্যে আমাকে ছেড়ে যেও না! এখন আর নয়! তুমি যা বলবে আমি তাই করব, প্লীজ, প্লী…জ?”

আমার কিছু বলবার চেষ্টা ওর কথার তোড়ে ভেসে গেল।

– “প্লীজ, দীপ! আমি… আমি তোমার সাথে ওরকম করতাম কারণ আমি ভাবতাম তুমি অন্তত ঝগড়া করবে আমার সাথে। আমার চিরকালের ভয় ছিল তোমাকে হারানো। সেই তুমি যখন কাজের চাপে দূরে, আরো দূরে চলে যেতে থাকলে, আমি….. আমার সাজানো তাসের ঘর ভেঙ্গে ভেঙ্গে পড়তে লাগল। তোমাকে হারাচ্ছি, এই ভয়ে আমি পাগল হয়ে গিয়েছিলাম – দীপ – আমার মাথার ঠিক নেই! কিন্তু তোমার প্রতি বিশ্বাসঘাতকতা করব না বলে অন্য পুরুষের দিকে কখনো তাকিয়ে দেখি, দীপ, বিশ্বাস করো!

তারপর…. তারপর ওরা…. ওদের সাথে দেখা হল…. ওরা আমার ব্যাথা বুঝল, আর…. তারপর রাণু আমাকে জড়িয়ে ধরে…. কতদিন তোমার আদর পাই নি, দীপ! কী যে হয়ে গেল কোথা দিয়ে! আমি খুব খারাপ মেয়েছেলে, দীপ! আমাকে মারো, মারো, আমাকে মেরে ফেলো, দীপ, আমাকে শেষ করে দাও, আমাকে মারো, ইউজ করো নষ্ট মেয়ের মত! দীপ…. তোমার চাবুক দিয়ে – !” golpo sex

– “এনাফ!”

জানালার গ্রীলগুলো পর্যন্ত যেন কেঁপে উঠল। এ গলা আমার নয়…. কিন্তু মুহুর্তপরেই নিজেকে সামলে নিয়েছি। অনু একদম স্থির, জমাট।

আবার ঘুরে ওকে আমার নীচে নিয়ে এলাম। ওর মুখ স্তব্ধ, বিস্ফারিত চোখ ভয় পাওয়া পাখির মত। দলিত মথিত একটা স্তন হাতে করে ধরলাম যেন এক আঁজলা জল।

– “রিগার্ডলেস, আই লাভ ইউ।”

আর কাঁদবার মত জল বাকী নেই অনুর চোখে। হেঁচকি উঠছে। হাত বাড়িয়ে বোতলটা নিয়ে বাকি জলটুকু পুরোটা ধীরে ধীরে খাওয়ালাম। ও আমার চোখ থেকে চোখ সরায়নি, যেন এক মুহুর্ত না দেখলেই ভ্যানিশ হয়ে যাব। একটা চুমু খেলাম সদ্য ভেজা ঠোঁটে। আবার চোখের কোনা দিয়ে জল গড়িয়ে এল। golpo sex

– “ছি, আজ আমাদের আনন্দের দিনে এত কাঁদতে আছে!”

আমার মাথা টেনে নিল অনু, বুভুক্ষুর মত চুম্বন যেখানে সেখানে। একটু ছাড়িয়ে নিয়ে আবার মুখে মুখ মিশিয়ে দিলাম। নিজের উরুর ফাঁকে উষ্ণমধুর কাঠিন্যের ছোঁয়া পেয়ে আপনা থেকেই পা ফাঁক করে দিল আমার অনু।

দুটি দেহ প্রেমের প্রতিযোগিতায় ভেসে গেল।

দ্বিতীয় পর্ব সমাপ্ত

পরিবর্তন দ্বিতীয় পর্ব – 4

1 thought on “golpo sex পরিবর্তন দ্বিতীয় পর্ব – 5”

Leave a Comment